মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

নামকরনের ইতিহাস

       

চরফ্যাশন উপজেলার নাম করনের ভূমিকাঃ

প্রত্যেকটি বস্ত্ত বা এলাকার একটি নাম থাকাটাই স্বাভাবিক। আর এই নাম থাকার পিছনেও থাকে বিভিন্ন যুক্তি বা সার্থকতা। এ এলাকাটির নাম চরফ্যাশন হওয়ার পিছনেও যথেষ্ট যুক্তি রয়েছে। যেমন-এ চরফ্যাশন পূর্বে কখনো নোয়াখালী, কখনো বরিশাল আবার কখনো বা পটুয়াখালীর গলাচিপার সাথে সংযুক্ত ছিল। বর্তমানে চরফ্যাশন থানাটি ভৌগলিক অবস্থান কিন্তু পূর্বে এমন ছিল না। এ চরফ্যাশন ছিল ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অসংখ্য চর। ঠিক তখনই বরিশালের জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট এইচ,জে,এইচ ফ্যাশন সাহেব ১৮৮৫-৮৭ সালের দিকে প্রশাসনিক ভাবে এ অঞ্চলের চরগুলির প্রতি দৃষ্টি দেন এবং এলাকার প্রান কেন্দ্র বর্তমান চরফ্যাশন বাজারটি গঠন করেন। মিঃ ডোনাবানের পরিকল্পনা অনুসারে প্রস্তাবিত এ বাজারের নাম রাখা হয় চরফ্যাশন বাজার। পরবর্তীতে এলাকার একমাত্র প্রানকেন্দ্র চরফ্যাশন বাজারের নাম অনুসারে গোটা এলাকার নাম করন করা হয় চরফ্যাশন। তিনি চরফ্যাশনের উন্নতির জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করেন।

 

চরফ্যাশন উপজেলায় উন্নীত হওয়ার ধারাবাহিক পর্যাক্রম : চরফ্যাশন উপজেলা আয়তনের দিক থেকে কত বড় তা দেশের নেতৃবৃন্দের অনেকেই জানেন না। শুধু আয়তনই নয়, লোক সংখ্যার দিক থেকেও বাংলাদেশের অনেক জেলার  লোক সংখ্যা চেয়ে বেশি। ১৯৬৮ ইং সালে গঠিত হয় চরফ্যাসন থানা। ১৯৮২ সালের ১৫ ডিসেম্বর চরফ্যাশন থানাকে মান উন্নীত করা হয়। মান উন্নিত থানা/উপজেলার প্রথম উপজেলা নির্বাহি অফিসার জনাব বিনয় কৃষ্ণ কর্মকার। তিনি চরফ্যাশন উপজেলাকে সুন্দর ভাবে গড়ে তোলার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। চরফ্যাসন উপজেলায় বিভিন্ন সরকারি উন্নয়ন কর্মকান্ড ছাড়াও বিভিন্ন এন,জি,ও সংস্থাও উন্নয়নের কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে আসছেন।